কুলাউড়ায় সপ লাইসেন্স নবায়ন কার্যক্রমের উদ্বোধন, বৈধতা পেলেন ৬০ ব্যবসায়ী

লাইক দিন ও শেয়ার করুন

মাহফুজ শাকিল :: মৌলভীবাজারের কুলাউড়ায় উপজেলা রাজস্ব প্রশাসনের আয়োজনে উপজেলার ৫টি বাজারে “একসনা বন্দোবস্ত” কার্যক্রমের মাধ্যমে ১৪২৬ বাংলা সনের সপ লাইসেন্স নবায়ন কার্যক্রমের উদ্বোধন উপলক্ষে এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। ৩০ এপ্রিল মঙ্গলবার দুপুরে উপজেলা ভূমি অফিস প্রাঙ্গণে আয়োজিত সভায় উপজেলা নির্বাহী অফিসার মুহাম্মদ আবুল লাইছের সভাপতিত্বে ও সহকারী কমিশনার (ভূমি) মোঃ সাদি-উর রহিম জাদিদের পরিচালনায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান অধ্যক্ষ এ.কে.এম সফি আহমদ সলমান। বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন কুলাউড়া ব্যবসায়ী কল্যাণ সমিতির সভাপতি বদরুজ্জামান সজল, সাধারণ সম্পাদক মঈনুল ইসলাম শামীম, সাংবাদিক এম শাকিল রশীদ চৌধুরী, মাহফুজ শাকিল ও নাজমুল বারী সোহেল। লিজ গ্রহীতাদের মধ্য বক্তব্য রাখেন কুলাউড়ার পেকুর বাজারের ব্যবসায়ী হাজী লোকমান আহমদ, ঘাটের বাজারের ব্যবসায়ী খোকা দাস, রবিরবাজারের ব্যবসায়ী মির্জান আহমদ ও এরশাদ আলী।
লিজ গ্রহীতারা তাদের বক্তব্যে বলেন, আমরা ক্ষুদ্র ব্যবসায়ীরা দীর্ঘদিন থেকে অবৈধভাবে ব্যবসা পরিচালনা করে আসছি। ইজারাদাররা আমাদের হুমকিও প্রদান করে দৈনিক অতিরিক্ত টোল আদায় করে নিয়ে যাচ্ছে। দেখার যেন কেউ নাই। সরকার সুযোগ-সুবিধা দেয়ায় এখন বৈধ লাইসেন্স পেয়েছি। আমরা এখন খুবই খুশি। ধন্যবাদ জানাই কুলাউড়ার রাজস্ব প্রশাসনকে।
উপজেলা ভূমি অফিস সূত্রে জানা যায়, কুলাউড়ায় সরকারি ২৪টি হাট-বাজার রয়েছে। এরমধ্য ১২টি হাট-বাজারের পেরি-ফেরি সীমানা নির্ধারণ করা হয়েছে। বাকি বাজারগুলো সীমান নির্ধারণের কাজ প্রক্রিয়াধীন। ১৪২৬ বাংলা সনে একসনা বন্দোবস্তের মাধ্যমে বৈধতা পেলেন ৬০জন ক্ষুদ্র ব্যবসায়ী। তন্মধ্যে রবিরবাজারে ৩৬ জন, পেকুরবাজার ১৪জন, নছিরগঞ্জ বাজার ৮জন, ঘাটের বাজার ১জন ও ফুলেরতল বাজার ১জন ব্যবসায়ী বৈধ লাইসেন্স পেয়েছেন।

উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) মোঃ সাদি-উর রহিম জাদিদ বলেন, বিগত ৫০ বছরে কুলাউড়ায় মাত্র দু’জন ক্ষুদ্র ব্যবসায়ী বৈধ লাইসেন্সধারী লিজ গ্রহীতা ছিলেন। আমি কুলাউড়ায় যোগদান করার পর আরো ৫৮জন ব্যবসায়ীকে জেলা প্রশাসক মোঃ তোফায়েল ইসলামের অনুমোদনক্রমে বৈধ লাইসেন্স প্রদান করেছি। ব্যবসায়ীরা এখন ব্যাংক থেকে ঋণ নিতে পারবে। তাদের কাছ থেকে কোন ইজারাদার আর টোল আদায় করতে পারবে না। কুলাউড়া হাট-বাজার কমিটির কার্যক্রম সক্রিয় রাখতে হবে। সরকারের উন্নয়ন কাজে একটি মহল নানান ভাবে বাধাগ্রস্থ করছে। নবায়ন কার্যক্রমের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রায় অর্ধশতাধিক ব্যবসায়ী নির্ধারিত সরকারি ফি দিয়ে আগামী একবছরের জন্য সপ লাইসেন্স করে লিজ গ্রহণ করেছেন।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার মুহাম্মদ আবুল লাইছ বলেন, কুলাউড়ার বিভিন্ন বাজারে দীর্ঘদিনের অনিয়ম এখন নিয়মে পরিণত হতে যাচ্ছে। উপজেলা রাজস্ব প্রশাসন সপ লাইসেন্সের মাধ্যমে উপজেলার বিভিন্ন বাজারের ক্ষুদ্র ব্যবসায়ীদের বৈধ লাইসেন্স প্রদান করবে। বাজারগুলোকে যদি নিয়মিত করতে পারি, তাহলে সরকার এখান থেকে রাজস্ব পাবে। যারফলে ব্যবসায়ীরা বৈধ লাইসেন্স পাচ্ছে।
প্রধান অতিথি এ.কে.এম সফি আহমদ সলমান বলেন, উপজেলার বিভিন্ন বাজারের ক্ষুদ্র ব্যবসায়ীদের বৈধতা প্রদানের জন্য উপজেলা রাজস্ব প্রশাসনকে সাধুবাদ জানাচ্ছি। বিভিন্ন বাজারে ইজারাদারদের দৌরাত্ম থেকে আমাদের ক্ষুদ্র ব্যবসায়ীদের রক্ষা করতে হবে। কোন অবস্থাতেই এখন থেকে কোন ইজারাদার বৈধ ব্যবসায়ীদের কাছ থেকে টোল আদায় করতে পারবে না। এক শ্রেণীর দালাল কুচক্রী মহলের কারণে সরকারের উন্নয়ন কাজ বাধাগ্রস্থ হচ্ছে। একটি মহল সরকারের আশ্রায়ন প্রকল্প নিয়ে অপ্রচার চালিয়ে সাধারণ জনগণের কাছে বিভ্রান্তি ছড়িযে যে কুৎসা রটাচ্ছে তার জন্য আমি তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছি। এই শ্রেণীর লোকেরা সমাজকে বিপদগ্রস্থ করছে। সরকারের কাছে যারা ভূল বার্তা পাঠায় তাদের সবাইকে প্রতিহত করতে হবে। উপজেলা প্রশাসন স্বচ্ছ ও জবাবদিহিতার মধ্য দিয়ে সুন্দরভাবে তার কার্যক্রম পরিচালনা করে যাচ্ছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *